রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০১:২৪ পূর্বাহ্ন

আর্জেন্টাইন রক্ষণভাগে অভিষেকেই নজর কেড়েছেন রোমেরো;
মোঃ মাহমুদুল হাসান (মাগুরা জেলা প্রতিনিধি) / ১৬১ ভিউ
সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২


রবের্তো আয়ালা, পাবলো সোরিন, গ্যাব্রিয়েল হাইন্সারা চলে যাওয়ার পর থেকেই আর্জেন্টিনার রক্ষণভাগ সমর্থকদের জন্য হতাশা। দলটি যে হারে আক্রমণাত্মক ফুটবলার তৈরি করে, সে অনুপাতে রক্ষণের খেলোয়াড় আর্জেন্টিনা থেকে বের হয় না—এ নতুন কথা নয়। ১০ বছর ধরে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট খেলতে যাওয়ার আগে আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় চিন্তার জায়গা থাকে রক্ষণ। আর কিছুদিন পরই ব্রাজিলের মাটিতে অনুষ্ঠিত হবে কোপা আমেরিকা। এবারও সে ধারার ব্যতিক্রম হচ্ছে না।

কিন্তু আজ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে চিলির বিপক্ষে আর্জেন্টিনার রক্ষণভাগের খেলা দেখলে সমর্থকেরা আশাবাদী হতেই পারেন। বিশেষ করে ক্রিস্টিয়ান রোমেরোর খেলা দেখে।
কিছুদিন আগেই ইতালিয়ান সিরি আ-র সেরা ডিফেন্ডার নির্বাচিত হয়েছেন রোমেরো। আতালান্তার হয়ে দুর্দান্ত এক মৌসুম কাটিয়েছেন। আতালান্তার হয়ে রোমেরোর খেলা দেখেই আর্জেন্টিনার সমর্থকেরা দাবি তুলেছিলেন, জাতীয় দলের মূল একাদশে রোমেরোকে চাই-ই চাই। নিকোলাস ওতামেন্দি, মার্কোস রোহো দিয়ে আর কত! সমর্থকদের কথা শুনেছেন কোচ লিওনেল স্কালোনি। চিলির বিপক্ষে রোমেরোর অভিষেক করিয়ে দেন তিনি। কোচের আস্থার প্রতিদান কী দুর্দান্তভাবেই না দিয়েছেন জুভেন্টাসের সাবেক এই ডিফেন্ডার।

৬২টি পাস দিতে গিয়ে সফল হয়েছেন ৫৩ বার, শতকরা হিসেবে ৮৫ শতাংশ। ১০টির ভেতর ৮টি ‘ডুয়েল’-এ জয়ী হয়েছেন। বল ক্লিয়ারেন্স করে দলকে বিপদমুক্ত করেছেন দুবার। প্রতিপক্ষের পা থেকে বল কেড়ে নিয়েছেন তিনবার, সফল ট্যাকল করেছেন দুবার। পেছন থেকে একবার দূরপাল্লার বল পাঠাতে গিয়ে সফল হয়েছেন। ৫২ মিনিটে হলুদ কার্ড দেখলেও গোটা ম্যাচেই দুর্দান্ত ছিলেন এই ডিফেন্ডার।

দুই অর্ধে দুই সঙ্গী নিয়ে খেলেছেন রোমেরো। প্রথমার্ধে রোমেরোর পাশে ছিলেন ফিওরেন্তিনার লুকাস মার্তিনেজ কার্তা, দ্বিতীয়ার্ধে তাঁকে উঠিয়ে মাঠে নামান হয় আয়াক্সের লিসান্দ্রো মার্তিনেজকে। রোমেরোর পাশে লিসান্দ্রোর খেলাও আশা জাগিয়েছে।

তবে ম্যাচ শেষে কোচ লিওনেল স্কালোনির কথা শুনে মনে হয়নি, রোমেরোর এমন খেলা দেখে তিনি বিন্দুমাত্রও আশ্চর্য হয়েছেন, ‘রোমেরোর ব্যাপারে আমি চমকাইনি। আমি যখন বলেছিলাম আমাদের হাতে একজন অসাধারণ সেন্টারব্যাক আছে, তখন আমি ভুল ছিলাম না। আমরা খুশি। ও এমনভাবে খেলছিল যেন এর আগেই ১০০টা ম্যাচ খেলেছে আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে। শেষমেশ জাতীয় দলে সেরারাই খেলে থাকে।’

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
জনপ্রিয়
সর্বশেষ