শনিবার, ২১ মে ২০২২, ১১:৫৮ পূর্বাহ্ন

ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে জোর পুর্বক পাট কেটে নেওয়ার অভিযোগ
বাঘা ( রাজশাহী) প্রতিনিধি / ১১৩ ভিউ
সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ২১ মে ২০২২
রাজশাহীর বাঘায় এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে জোর পুর্বক ৯৫ শতাংশ জমির পাট কেটে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার গড়গড়ি ইউনিয়নের খান পুর এলাকায়। এ ঘটনায় গত বুধবার (১১- ০৮-২১) ভুক্তভোগী আব্দুর রহিম মোল্লা বাদী হয়ে বাঘা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, উপজেলার গড়গড়ি ইউনিয়নের খানপুর গ্রামের আব্দুর রহিম মোল্লা তার নিজ নামীয় ৫০ শতাংশ ও কট বন্দক নেয়া ৪৫ শতাংশ জমিতে পাট চাষ করেন। উক্ত জমির তফসিল ( সাবেক জেএল নম্বর -১৮৬ , জেএল নম্বর দিয়াড়া -১৮৯, খতিয়ান নম্বর-১, দাগ নম্বর দিয়াড়া-১৮১,১৮৪,সাবেক খতিয়ান নম্বর-৩ সাবেক দাগ নম্বর -২৯)। কিন্তু ওই ইউনিয়নের ০৭ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মৃত নজরুল সরকারের ছেলে রাশেল সরকারের নেতৃত্বে আশসাব সরকারের ছেলে রাকিব,মৃত হশেম সরকারের ছেলে আশসাব সরকার, নওশেন আলীর ছেলে জাহেদুলসহ অজ্ঞাত আরো অনেকে জোর পুর্বক ঐজমির পাট কেটে নেয়। ভুক্তভোগী আব্দুর রহিম বলেন,খবর পেয়ে আমি সেখানে গিয়ে নিষেধ করলে ইউপি সদস্য রাসেল আমাকে অকথ্য ভাষায় গালি-গালাজ করে এবং আমাকে কুপিয়ে হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। আমি প্রাণের ভয়ে সেখান থেকে পালিয়ে জীবন রক্ষা করি।

এ ব্যপারে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য রাসেল সরকার অকথ্য ভাষায় গালি-গালাজ ও কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ অস্বিকার করে বলেন, আমি ওই জমি ক্রয় করার জন্য বায়না দিয়েছি মর্মে আমি পাট কেটে নিয়েছি। জমির বায়না নামার কোন লিখিত প্রমাণ আছে কি না জানতে চাইলে সে এই প্রতিবেদককে বলে তার কাছে কোন প্রামাণ নেই।

এ ব্যাপারে গড়গড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলামের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে ফোনটি রিসিভ হয়নি।

এ বিষয়ে বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) সাজ্জাদ হোসেন অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ওই এলাকায় দায়িত্ব প্রাপ্ত অফিসারকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
জনপ্রিয়
সর্বশেষ