শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ১১:৩৫ অপরাহ্ন

দাউদকান্দিতে ঈদে ঢাকা-চট্র্রগ্রাম হাসড়কে দূর্ঘটনা-চাঁদাবাজি-যানজট রোধে সতর্ক হাইওয়ে পুলিশ
লিটন সরকার বাদল (সম্পাদক দৈনিক দেশের কথা) / ২০ ভিউ
সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২

আসন্ন ইদুল আযহাকে সামনে রেখে মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনা- চাঁদাবাজি ও যানজট রোধসহ শৃঙ্খলা বজায় রাখতে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে দাউদকান্দি হাইওয়ে থানা পুলিশ।

ঈদুল আযহায় যাত্রী ও পশুবাহী যানবাহনের নির্বিঘ্নে গন্তব্যে পৌঁছাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দিন-রাত সেবা দিয়ে যাচ্ছে হাইওয়ে পুলিশ। পাশাপাশি পণ্যবাহী বা খালি ট্রাক, কাভার্ডভ্যান, লরিতে যাত্রী পরিবহন বন্ধে তৎপর রয়েছে পুলিশ।

প্রতিটি যানবাহনের যাত্রাপথ নির্বিঘ্নে চলালের জন্য হাইওয়ে দাউদকান্দি থানা এলাকার বিভিন্ন গুরুত্বপূন স্থানে হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি কমিউনিটি পুলিশ সেবা দিয়ে যাচ্ছে। মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দি বলদাখাল,দাউদকান্দি বিশ্বরোড,গৌরীপুর,আমিরাবাদ,রায়পুর এলাকায় দিন-রাতে কয়েকটি হাইওয়ে পুলিশের টিম একটানা কাজ করছে।
এসব টিমের সদস্যরা মহাসড়কের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতেও হাইওয়ে পুলিশের টহল দল যানচলাচল নিরাপদে কাজ করে যাচ্ছে।


ঈদ এলেই সড়কে ব্যস্ততা বেড়ে যায়
এছাড়া মহাসড়কে তিন চাকার যানবাহন চলাচলে সড়ক দুর্ঘটনারোধে গুরুত্ব সহকারে তদারকি করছে পুলিশ। মহাসড়কে বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানো, নিবন্ধনবিহীন গাড়ি চালানো এবং লাইসেন্স ও হেলমেটবিহীন মোটরসাইকেল চালানোসহ বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে নিয়মিত মামলা করা হচ্ছে।
দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার ওসি মোঃ জহুরুল হক বলেন, ঈদকে সামনে রেখে কুমিল্লা হাইওয়ে অঞ্চলের পুলিশ সুপার মহোদয়ের নিদশনায় মহাসড়কে আমরা বিশেষভাবে তৎপর রয়েছি। আসন্ন ঈদ উপলক্ষে সড়কে যেকোনও ধরনের নৈরাজ্য বন্ধ এবং দেশের অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে যানজটমুক্ত রাখতে দাউদকান্দি হাইওয়ে থানা পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে। এছাড়া মহাসড়কে তিন চাকার যানবাহন চলাচলে হাইকোর্ট ও সরকার এসব যান চলাচলকে নিষিদ্ধআরোপ ঘোষণা করেছেন। আমরাও এসব যানবাহনের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছি।
গরুবাহী ট্রাক কিংবা যাত্রীবাহি পরিবহন যেন নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারে সেজন্য দিন-রাত কাজ করছে হাইওয়ে পুলিশ। পাশাপাশি ঈদকে ঘিরে চাঁদাবাজি কিংবা ছিনতাই রোধে সার্বিক নিরাপত্তায় হাইওয়ে পুলিশ সর্বোচ্চ সতর্ক আছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
তিনি আরো বলেন, পশুবাহী গাড়ি যেন নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছাতে পারে অর্থাৎ যে গাড়ি যে বাজারে যাবে সেটা নিশ্চিতে ব্যবস্থা করা, অতিরিক্ত গতিতে গাড়ি চালানো রোধে স্পীডগান ব্যবহার করে দুর্ঘটনার ঝুঁকি কমানোসহ পণ্যবাহী গাড়িতে লোক চলাচল বন্ধে কঠোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
জনপ্রিয়
সর্বশেষ