বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৫৯ অপরাহ্ন

দাউদকান্দিতে ১০ কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের মূর্তি উদ্ধার
লিটন সরকার বাদল, / ৬৭৫ ভিউ
সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২

কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি উপজেলা সুন্দুলপুর মডেল ইউনিয়নের বড় গোয়ালী গ্রাম থেকে দশ কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের একটি বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার রাত সারে ১০ টার দিকে উপজেলার সুন্দলপুর মডেল ইউনিয়নের বড়-গোয়ালী গ্রামের চর-গোয়ালী খন্দকার নাজির উদ্দিন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আবু ইউসুফ বুলবুল এর বাড়ী থেকে প্রায় ১২ কেজি ওজনের সনাতন ধর্মাবলম্বী দের প্রাচীন বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার করেছে দাউদকান্দি মডেল থানা পুলিশ৷ বিষ্ণুমূর্তিটি প্রাচীন প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন। এটি সংশ্নিষ্ট প্রত্নতাত্ত্বিক অধিদপ্তরে জমা দেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানা যায়। এই বিষয়ে দাউদকান্দি সার্কেল সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এএসপি মোঃ জুয়েল রানা বলেন, প্রাচীন এই মূর্তিটি আমাদের দেশের প্রত্নসম্পদ। বিষ্ণু মূর্তি উদ্ধার করা হয়েছে এখন এটি দাউদকান্দি থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। ইতিমধ্যেই উপজেলা প্রশাসন মারফত প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর কে বিষয়টি জানানো হয়েছে। এর গুনাগুণ পর্যবেক্ষন ও ইতিহাস উদঘাটন করে তারা রক্ষণাবেক্ষণ সহ পরবর্তি পদক্ষেপ গ্রহন করবে। দাউদকান্দি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নজরুল ইসলাম জানান , গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে সুন্দলপুর মডেল ইউনিয়নের বড়-গোয়ালী গ্রামের চর-গোয়ালী খন্দকার নাজির উদ্দিন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আবু ইউসুফ বুলবুল এর বাড়ী থেকে অভিযান চালিয়ে কষ্টিপাথরের মূর্তিটি উদ্ধার করা হয়। এটির ওজন ১২ কেজি ৪০ গ্রাম, উচ্চতা ২৩ ইঞ্চি এবং প্রস্থ ১০ ইঞ্চি। মূর্তিটির বাজারমূল্য প্রায় দশকোটি ১০ লাখ টাকা। ধারণা করা হচ্ছে, এটি ৭০০ থেকে ৮০০ বছরের পুরোনো, তবে মূর্তিটি অক্ষত হওয়ায় এবং পূরাকৃর্তী হওয়ার কারণে এর দাম বহুগুণে বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হয়।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
জনপ্রিয়
সর্বশেষ