বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৮:৩৯ অপরাহ্ন

বিরোধ নিরসন না হলে ফরিদপুর জেলা আওয়ামীলীগের নতুন আহবায়ক কমিটি
খন্দকার সাদ্দাম মুন নুর জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর / ১৭৩ ভিউ
সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২

ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগে দীর্ঘদিন ধরেই নানা অসন্তোষ চলছে। ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশারফ হোসেন রাজনীতিতে কোণঠাসা হওয়ার পর থেকে নানা গ্রুপিংয়ে খুঁড়িয়ে চলছে জেলা আওয়ামী লীগ। নেতৃত্বহারা হয়ে নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছে বর্তমান জেলা কমিটি।

দলীয় কোনো কর্মসূচীতে দেখা মিলছে না জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সম্পাদককে। পর্দার আড়ালে থেকে চালাচ্ছেন গ্রুপিং। জেলা যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ সহ অন্যান্য সহযোগী সংগঠনগুলোও ভুগছে অভিভাবকহীনতায়।

তাই ফরিদপুর জেলা কমিটির ওপর আবারও ক্ষুব্ধ হয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দ্রুত সময়ের মধ্যে দ্বন্দ মিটিয়ে মিল না হলে প্রয়োজনে ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগ কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

ফরিদপুর শহর আওয়ামী লীগের কমিটি নিয়ে জেলার সভাপতি সুবল সাহা ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হেসেনের মধ্যে বিরোধ চলছে।

এ বিষয়ে মনোনয়ন বোর্ডের সভায় আলোচনা উঠলে এই নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। ফরিদপুর শহর আওয়ামী লীগের জমা পড়া পৃথক দুটি কমিটিও বাদ দিতে বলেন শেখ হাসিনা।

তবে ওই জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের সঙ্গে বসে কেন্দ্রীয় নেতাদের সমন্বয় করার কথাও বলেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। বিরোধ নিষ্পত্তি, সমন্বয় করার চেষ্টা বিফলে গেলে সিনিয়র সহ-সভাপতিকে আহ্বায়ক করে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি করে দিতে বলেন তিনি।

শনিবার (১২ জুন) গণভবনে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের সভায় দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে এই নির্দেশ দেন দলীয় সভাপতি।

মনোনয়ন বোর্ডের সভায় উপস্থিত থাকা একাধিক সদস্য আরও বলেন, ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে দলাদলি ও বিরোধ নিরসন করতে ঢাকায় ডেকে পাঠানোর নির্দেশও দেন দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা। কেন্দ্রীয় নেতাদের হস্তক্ষেপে বিরোধ নিষ্পত্তি না হলে গঠনতন্ত্র অনুসরণ করে ব্যবস্থা নিতে বলেন প্রধানমন্ত্রী।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
জনপ্রিয়
সর্বশেষ