বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:২৬ অপরাহ্ন

মেহেরপুরের গাংনীতে ২ সন্তানের জননী উধাও, থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ
মেহেরপুর থেকে জাহিদ মাহমুদঃ / ৩২ ভিউ
সর্বশেষ আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২
 মেহেরপুরে ২ সন্তানের জননী তার সন্তানদের রেখে উধাও হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গাংনী উপজেলার পুরাতন মটমুড়া গ্রামে। ওই গৃহবধু পুরাতন মটমুড়া গ্রামের ইকবাল হোসেনের স্ত্রী খালেদা আক্তার পান্না (২৮)। গৃহবধুর স্বামী ইকবাল হোসেন পরকিয়ার অভিযোগ তুলে গাংনী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।

গাংনী থানার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ৫ সেপ্টেম্বর রবিবার বিকাল ৩ টার দিকে বাড়ির সবার অগচরে পালিয়ে যায়।
সেই সাথে ঘরে থাকা সাড়ে ৩ লক্ষ টাকাও নিয়ে যায়। আর এই ঘটনার মূল খলনায়ক একই গ্রামের মৃত সাত্তারের ছেলে জাকির হোসেন (৪০)। এমন দাবী গৃহ বধুর স্বামী ইকবাল হোসেনের।

ইকবাল হোসেন জানান, আমার স্ত্রীর সাথে জাকির হোসেনের দীর্ঘদিনের পরকিয়ার সম্পর্ক রয়েছে। তারা বিভিন্ন সময় মোবাইলে কথাবার্তা বলত ও গোপনে দেখা সাক্ষাৎ করত। তাদের এই অবৈধ সম্পর্কের কারনে ইতিপূর্বে আমাদের পরিবারের মধ্যে বেশ কয়েকবার মনমালিন্য ও ঝগড়া বিবাধ হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ৫ সেপ্টেম্বর রবিবার আমার স্ত্রী পান্না সন্তানদের রেখে সাড়ে ৩লক্ষ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। ওদিকে জাকির হোসেন তাকে অজ্ঞাত কোন স্থানে রেখে এসে এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছা। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করার কারনে আমার মাঠের পাম্পের পানি যাওয়ার ক্যানাল ভেঙ্গে দিয়েছে। আমি জাকির হোসেনের বিচারের দাবী জানাচ্ছি।

প্রতিবেশীরা জানান, জাকির হোসেন ও পান্নার মধ্যকার সম্পর্কের কারনে তাদের পরিবারে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকত। জাকির ইতিপূর্বেও এক প্রতিবেশীর স্ত্রীকে নিয়ে ভেগে গিয়েছিল। পরে জরিমানা দিয়ে মিমাংসা করেছিল। জাকির হোসেন খারাপ প্রকৃতির মানুষ।

এদিকে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে জাকির হোসেন জানান, ইকবাল হোসেন তার স্ত্রীকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে। তার শশুর বাড়ির লোকের তোপের মুখে আমার ঘাড়ে দোষ চাপানোর অপচেষ্টা করছে।

পান্নার বাবা আব্দুল খালেক জানান, আমার জামাই মাঝে মাঝে আমার কাছে বিভিন্ন অংকের টাকা দাবী করে। এ যাবৎ অনেক টাকা দিয়েছি। দিন দশেক আগেও স্কেবেটর কেনার কথা বলে ১লক্ষ টাকা দাবী করে। টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে আমার মেয়েকে মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে।

অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই বিপ্লব জানান, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলমান রয়েছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানানো হবে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

জনপ্রিয়
সর্বশেষ