মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:৫৬ অপরাহ্ন

সারাদেশের ন্যায় মেহেরপুরেও এসএসসি পরীক্ষা শুরু
মেহেরপুর থেকে জাহিদ মাহমুদঃ / ১৯৭ ভিউ
সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

সারাদেশের ন্যায় মেহেরপুরেও দীর্ঘ দেড় বছর বন্ধ থাকার পর মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি), দাখিল ও এসএসসি (ভকেশনাল) পরীক্ষা শুরু হয়েছে।
এ পরীক্ষা চলবে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত। মেহেরপুর জেলার ১৩টি কেন্দ্রে এসএসসি, ২টি কেন্দ্রে দাখিল এবং ৩টি কেন্দ্রে এসএসসি (ভকেশনাল) পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

রবিবার (১৪ নভেম্বর) সকাল ১০টা থেকে শুরু হওয়া পরীক্ষা বেলা সাড়ে ১১টায় শেষ হয়েছে । ১ম দিন সকালে অনুষ্ঠিত হয়েছে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের পদার্থ বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) পরীক্ষা। এবার সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে এবং প্রতি বিভাগে তিন বিষয়ে (নৈর্ব্যক্তিক) পরীক্ষা নেওয়া হবে।

আগামীকাল সোমবার সকালে মানবিক বিভাগে বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা এবং বিকালে ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের হিসাব বিজ্ঞান বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিবছর ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হলেও বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে প্রায় দেড় বছর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় এবার যথা সময়ে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। বর্তমানে করোনায় আক্রান্তের হার সহনীয় মাত্রায় পৌঁছানোয় পুনর্বিন্যাস করা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এবার দেড় ঘণ্টায় এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশেষ তিনটি বিষয়ের ওপর পরীক্ষা নেওয়া হবে। এ বিষয়গুলোর ফলাফল মূল্যায়ন করে ফল প্রকাশ করা হবে।
মেহেরপুর জেলায় ১ম দিন ১ হাজার ৯৬৩ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করছে। এর মধ্যে মেহেরপুর সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২৮৩ জন, মেহেরপুর সরকারি বালিক উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২৮১ জন, আমঝুপি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১৭০ জন, সাহেবনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১৩১ জন, গাংনী পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় এন্ড কলেজ কেন্দ্রে ১৭৬ জন, গাংনী সরকারি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১৫০ জন, বামন্দী নিশিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১২৫ জন, বামন্দী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৭৬ জন, বেতবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১৬৩ জন, রায়পুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১২০ জন, জুগিরঘোপা মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২৭ জন, মুজিবনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১৯০ জন, দারিয়াপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১১১ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করছে।

এছাড়া এসএসসি দাখিল পরীক্ষায় ২টি কেন্দ্রে ৫৫৭ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করছে। ১ম দিন কুরআন মজিদ ও তাজভিদ পরীক্ষায় মেহেরপুর দারুল উলুম আহমেদিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে ৩৭৪ জন এবং গাংনী সিদ্দিকিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে ১৮৩ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করছে। এসএসসি (ভকেশনাল) পরীক্ষায় মেহেরপুর জেলায় ৩টি কেন্দ্রে ১ হাজার ১৮৫ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করছে।

১ম দিন মেহেরপুর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে ৪৫১ জন, গাংনী পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় এন্ড কলেজ কেন্দ্রে ৫৩৮ জন এবং দারিয়াপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১৯৬ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করছে।

চলতি বছরে এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে ২২ লাখ ২৭ হাজার ১১৩ জন পরীক্ষার্থী। মোট ৩ হাজার ৬৭৯টি কেন্দ্রে এবারের এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মোট ২৯ হাজার ৩৫টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। সারাদেশে ৯টি সাধারণ বোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি, দাখিল, এসএসসি (ভকেশনাল) পরীক্ষায় ১৮ লাখ ৯৯৮ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। অন্যদিকে, ৭১০টি পরীক্ষা কেন্দ্রে মোট ৩ লাখ ১ হাজার ৮৮৭ জন শিক্ষার্থী দাখিল পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। ৭৬০টি পরীক্ষা কেন্দ্রে ভকেশনাল পরীক্ষা দিচ্ছে ১ লাখ ২৪ হাজার ২২৮ জন। ২০২০ সালের তুলনায় ২০২১ সালে মোট পরীক্ষার্থী বেড়েছে ১ লাখ ৭৯ হাজার ৩৩৪ জন। এই বৃদ্ধির হার ৮ দশমিক ৭৬। মোট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বেড়েছে ১৫১টি এবং কেন্দ্র বেড়েছে ১৬৭টি।
এদিকে, শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) পরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অভিভাবক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নির্দেশনা দিয়েছে।
চলতি বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের গ্রুপভিত্তিক বিভাগওয়ারি পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, বিজ্ঞান বিভাগে ঢাকা বোর্ডে ১ লাখ ৩৪ হাজার ৪৩১, রাজশাহী বোর্ডে ৮১ হাজার ২২৪, কুমিল্লা বোর্ডে ৫৪ হাজার ৫৮৩, যশোর বোর্ডে ৩৭ হাজার ৬০১, চট্টগ্রাম বোর্ডে ৩১ হাজার ৫৭, বরিশাল বোর্ডে ২৫ হাজার ১১২, সিলেট বোর্ডে ২১ হাজার ৬২৩, দিনাজপুর বোর্ডে ৭৯ হাজার ৩৬৫ এবং ময়মনসিংহ বোর্ডে ৪১ হাজার ৮৩৫ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।
মানবিক বিভাগে ঢাকা বোর্ডে ২ লাখ ৯৫৭, রাজশাহী বোর্ডে ১ লাখ ১৪ হাজার ৭২৫, কুমিল্লা বোর্ডে ৮৯ হাজার ৩৬১, যশোর বোর্ডে ১ লাখ ১৭ হাজার ১০৯, চট্টগ্রাম বোর্ডে ৬৫ হাজার ১৫৭, বরিশাল বোর্ডে ৫৯ হাজার ৬৫৬, সিলেট বোর্ডে ৮৯ হাজার ৯৩৩, দিনাজপুর বোর্ডে ১ লাখ ৯ হাজার ৭০৬ এবং ময়মনসিংহ বোর্ডে ৭৭ হাজার ৪৮১ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।
ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ঢাকা বোর্ডে ১ লাখ ৪০ হাজার ৭১২, রাজশাহী বোর্ডে ১১ হাজার ৬১৯, কুমিল্লা বোর্ডে ৮০ হাজার ৯৩০, যশোর বোর্ডে ২৬ হাজার ৫৭২, চট্টগ্রাম বোর্ডে ৬৪ হাজার ৭১১, বরিশাল বোর্ডে ২০ হাজার ২২২, সিলেট বোর্ডে ৯ হাজার ৫৫৫, দিনাজপুর বোর্ডে ৪ হাজার ৩৭৫ এবং ময়মনসিংহ বোর্ডে ১১ হাজার ৩৮৬ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।
বিজ্ঞান বিভাগে মোট পরীক্ষার্থী ৫ লাখ ৬ হাজার ৮৩১ জন, মানবিকে ৯ লাখ ২৪ হাজার ৮৫ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৩ লাখ ৭০ হাজার ৮২ জন।
২০২১ সালের সংশোধিত ও পুনর্বিন্যাস করা সিলেবাসে গ্রুপভিত্তিক ৩টি নির্বাচনিক বিষয়ে পরীক্ষা হবে। নিয়মিত পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে শারীরিক শিক্ষা, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান ও খেলাধুলা এবং ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়ে এনসিটিবির নির্দেশনা অনুসারে ধারাবাহিক মূল্যায়নের মাধ্যমে প্রাপ্ত নম্বর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রকে সরবরাহ করা হবে। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বরের সঙ্গে ধারাবাহিক মূল্যায়নে প্রাপ্ত নম্বর অনলাইনে বোর্ডে পাঠাবে।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
জনপ্রিয়
সর্বশেষ